সোমবার, ২৭-জানুয়ারী ২০২০, ১১:৩৭ পূর্বাহ্ন
  • জেলা সংবাদ
  • »
  • হাসপাতালবিহীন রাঙ্গাবালীতে নৌ অ্যাম্বুলেন্স চালু

হাসপাতালবিহীন রাঙ্গাবালীতে নৌ অ্যাম্বুলেন্স চালু

shershanews24.com

প্রকাশ : ১৪ জানুয়ারী, ২০২০ ১১:০৬ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, পটুয়াখালী: পটুয়াখালীর জেলার নৌপথনির্ভর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন উপজেলা রাঙ্গাবালী। তিনদিকে নদী ও একদিকে সাগর বেষ্টিত এ জনপদে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে নৌ অ্যাম্বুলেন্স চালু হয়েছে।
এই উপজেলায় দুই লাখ মানুষের বসবাস। কিন্তু তাদের স্বাস্থ্যসেবার জন্য নেই কোনো সরকারি কিংবা বেসরকারি হাসপাতাল। তাই নৌপথ পাড়ি দিয়ে অন্যত্র গিয়ে স্বাস্থ্যসেবা নিতে হয়। বিচ্ছিন্নতার কারণে এতেও রয়েছে নানা বিপত্তি। তবে সেই বিপত্তি কাটিয়ে আলোর দিশারি হয়ে এ জনপদের মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে নৌ অ্যাম্বুলেন্স সেবা শুরু হয়েছে।
জেলা সদর থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এ উপজেলার মানুষের স্বাস্থ্যসেবার দুর্ভোগ লাঘব করতে এমবি ‘পায়রা বোট অ্যাম্বুলেন্স’ নামক এ নৌঅ্যাম্বুলেন্স সেবা শুরু হয়েছে।
সংশ্লিষ্টরা জানান, এটি ২৪ ঘণ্টা উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নের যে কোনো প্রান্ত থেকে রোগী নিয়ে ২০-৩০ মিনিটের মধ্যে পার্শ্ববর্তী উপজেলা কিংবা জেলা সদরের হাসপাতালে পৌঁছাতে সক্ষম হবে। এতে থাকছে অক্সিজেন ও জরুরি ওষুধের ব্যবস্থা। থাকবে সার্বক্ষণিক স্বাস্থ্যকর্মী ও স্বাস্থ্যসেবার অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা।
আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের অর্থায়নে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা অভিযাত্রিক ফাউন্ডেশনের পরিচালনায় ২৯ লাখ টাকা ব্যয়ের একটি প্রকল্পে এমবি ‘পায়রা বোট অ্যাম্বুলেন্স’ কার্যক্রম শুরু হয়। অ্যাম্বুলেন্সটি ১০ জন মানুষের ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন।
২৬ ফুট দৈর্ঘ্য এবং ১১৫ হর্স পাওয়ার সংবলিত দ্রুতগামী নৌযান। সোমবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ চত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে এ নৌঅ্যাম্বুলেন্সের উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এটির কার্যক্রম শুরু হয়।
অভিযাত্রিক ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট আহমেদ ইমতিয়াজ জামি বলেন, রাঙ্গাবালী উপজেলায় তিন বছর ধরে আমরা কাজ করছি। দীর্ঘদিন ধরেই বোট অ্যাম্বুলেন্স সেবা চালু করার চেষ্টা ছিল। অবশেষে আমরা সফল হয়েছি। হাসপাতালবিহীন এ জনপদের মানুষকে দ্রুত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে এটি একটি বড় সহায়ক হবে বলে মনে করছি।
আইডিএলসির এমডি ও সিইও আরিফ খান বলেন, নদী ও সাগরঘেরা দুর্গম উপজেলার মানুষের স্বাস্থ্যসেবার কথা চিন্তা করে আমরা বোট অ্যাম্বুলেন্স প্রকল্পের কাজ শুরু করেছি। মানবসেবায় আমাদের ক্ষুদ্র এই প্রয়াস সফল হবে বলে আশা করছি।
এ ব্যাপারে পটুয়াখালী জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, জরুরি স্বাস্থ্যসেবার জন্য নৌ অ্যাম্বুলেন্স চালু হয়েছে। তবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নির্মাণের কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
শীর্ষনিউজ/এমকে