শনিবার, ২২-ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৬:৫৫ পূর্বাহ্ন
  • শিক্ষা
  • »
  • নির্বাচন পেছাতে ৫০ শিক্ষার্থীর আমরণ অনশন শুরু

নির্বাচন পেছাতে ৫০ শিক্ষার্থীর আমরণ অনশন শুরু

shershanews24.com

প্রকাশ : ১৬ জানুয়ারী, ২০২০ ০৬:১৯ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, ঢাকা : সরস্বতী পূজার কারণে আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তারিখ পেছানোর দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০ শিক্ষার্থী আমরণ অনশন শুরু করেছে।
বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) রাজু ভাস্কর্যের সামনে এই আমরণ অনশন শুরু করে শিক্ষার্থীরা।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হল সংসদ শাখার ভাইস প্রেসিডেন্ট (ভিপি) উৎপল বিশ্বাস বৃহস্পতিবার বিকেলে বলেন, ৩০ জানুয়ারি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সরস্বতী পূজা পালনের দিন। একই দিনে নির্বাচন কমিশন দুই সিটির ভোট গ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করেছে। ভোটের তারিখ পরিবর্তনের দাবিতে আমরা গত কয়েকদিন ধরে আন্দোলন করে আসছি। এর মধ্যে শাহবাগ অবরোধ করে আন্দোলনও করেছি। বুধবার নির্বাচন কমিশন অভিমুখে পদযাত্রাও করেছিলাম। তবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের সামনে পুলিশ শিক্ষার্থীদের পদযাত্রা আটকে দেয়।
‘নির্বাচনের তারিখ পেছানোর দাবিতে ধারাবাহিক কর্মসূচী পালন করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সবার একটাই দাবি ভোটের তারিখ পরিবর্তন করা হোক।’ যোগ করেন উৎপল বিশ্বাস।
উৎপল বিশ্বাস আরও বলেন, ‘হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অনেকেই আদালতের আশ্রয় নিয়েছেন। উচ্চ আদালতে আপিল করেছেন। দেখা যাক কি হয়। এছাড়া দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা অনশন চালিয়ে যাব।’
জগন্নাথ হল সংসদ শাখার সাধারণ সম্পাদক (জিএস) কাজল দাস বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থীরা আমরণ অনশন শুরু করেছেন। আমরাও আছি অনশনে। নির্বাচন কমিশন অফিসিয়ালি জানিয়েছে, তাদের পক্ষে নির্বাচন পেছানো সম্ভব নয়। তারপরও আমরা নির্বাচন কমিশনকেই জানাতে চাই, একই দিনে ভোট আর পূজা হতে পারে না। তাই সকল দিক বিবেচনায় ভোট গ্রহণের তারিখ পরিবর্তন করা হোক।
গত মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শাহবাগ চত্বর থেকে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণের তারিখ পেছাতে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) ১৮ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। বুধবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুর ১২টার মধ্যে ভোটের তারিখ পরিবর্তন করা না হলে তারা ইসি অভিমুখে যাত্রা করবে এবং ইসি ঘেরাও কর্মসূচি পালন করবে। একইসঙ্গে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের চেষ্টার অভিযোগে ঢাবি শিক্ষার্থীরা প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদাসহ অন্য নির্বাচন কমিশনারদেরও পদত্যাগ দাবি করে তারা।
এরই ধারাবাহিকতায় ১৫ জানুয়ারি বুধবার বেলা ১২টা থেকে ঢাবি শিক্ষার্থীরা ঘোষণা অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন অভিমুখে পদযাত্রা শুরু করে। পরে পুলিশের বাধায় শাহবাগ মোড়েই অবস্থান নেয় তারা। পরে শাহবাগ মোড়ে বেশ কিছুক্ষণ বিক্ষোভের পর ১৬ জানুয়ারি রাজধানীর সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও রাজু ভাস্কর্যের সামনে অবস্থান কর্মসূচি ঘোষণা করে সেখান থেকে চলে যায় শিক্ষার্থীরা।
শীর্ষনিউজ/এমকে