বুধবার, ২৫-নভেম্বর ২০২০, ০৮:০৭ অপরাহ্ন
  • আন্তর্জাতিক
  • »
  • এবার ফ্রান্সের শার্লি হেবদোতে এরদোগানের বিতর্কিত কার্টুন

এবার ফ্রান্সের শার্লি হেবদোতে এরদোগানের বিতর্কিত কার্টুন

shershanews24.com

প্রকাশ : ২৮ অক্টোবর, ২০২০ ০২:৪৯ অপরাহ্ন

শীর্ষ নিউজ  ডেস্ক : এবার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানকে অবজ্ঞা করে তার কার্টুন প্রকাশ করেছে ফ্রান্সের ব্যঙ্গ ম্যাগাজিন শার্লি এবদো। 

আজ বুধবার তাদের নতুন সংখ্যার প্রচ্ছদ ছবিতে এ ছবি প্রকাশ করা হয়। সংবাদ সংস্থা এএফপি এ খবর জানিয়েছে।

শার্লি এবদোর এমন প্রচ্ছদ প্রকাশের পর তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে তুরস্ক। এরদোগানের শীর্ষ প্রেস উপদেষ্টা ফেহরেত্তিন আলতুন এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, সাংস্কৃতিক বর্ণবাদ এবং বিদ্বেষ ছড়িয়ে দেয়ার সবচেয়ে ঘৃণ্য প্রচেষ্টা হিসেবে আমরা এই প্রকাশনার নিন্দা করি।

তুরস্কের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র ইব্রাহীম কালিন টুইটারে বলেছেন, ফরাসী ম্যাগাজিনে আমাদের প্রেসিডেন্টকে জড়িয়ে যে চিত্র প্রকাশ করা হয়েছে; যেখানে কোনও বিশ্বাস, পবিত্রতা এবং মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধা নেই, আমরা দৃঢ়ভাবে এর নিন্দা জানাই।

তিনি বলেছেন, তারা কেবল নিজেদের অশ্লীলতা এবং অনৈতিকতার প্রদর্শন করছে। কারও ব্যক্তিগত অধিকারের ওপর আক্রমণ হাস্যরস কিংবা মত প্রকাশের স্বাধীনতা হতে পারে না।

শার্লি হেবদোর প্রচ্ছদে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান একটি সাদা টি-শার্ট এবং অন্তর্বাস পরে বসে আছেন। পাশে হিজাব পরিহিত এক নারী মদের পসরা সাজিয়ে অর্ধ-নগ্ন অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছেন।


ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বনাম তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগানের মধ্যকার প্রবল বিরোধের মধ্যেই শার্লি হেবদো ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ কার্টুন এরদোগানকে নিয়ে। মহানবী (সা.)-এর কার্টুন প্রকাশ করে শার্লি হেবদো ম্যাগাজিন ২০১২ সালে বিতর্কের ঝড় তুলেছিল। সেই কার্টুন দেখিয়ে ১৬ অক্টোবর মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ব্যাখ্যা করতে গিয়েছিলেন ফরাসি শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি। পরে তাঁকে হত্যা করে ১৯ বছর বয়সী এক চেচেন যুবক।

এরপর ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ জানিয়েছিলেন, তিনি মতপ্রকাশের স্বাধীনতার পক্ষে। এ অবস্থান থেকে পিছিয়ে আসার কোনো সম্ভাবনা নেই। অন্যদিকে ম্যাক্রোঁকে ফ্যাসিস্ট আখ্যা দিয়ে এরদোগান আহ্বান জানান, কেউ যেন ফরাসি পণ্য না কেনে। এরপর আরব দুনিয়ার অনেক দেশই ফরাসি জিনিস বয়কট করেছে।

এদিকে ম্যাক্রোঁ বনাম এরদোগানের লড়াই শুধু কার্টুন বা একে অন্যের বিরুদ্ধে তর্কযুদ্ধে সীমাবদ্ধ নেই। ফ্রান্স ইউরোপীয় ইউনিয়নকে জানিয়েছে, তুরস্কের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। কারণ, এরদোয়ান ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন। এরদোগান ম্যাক্রোঁর মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে প্রশ্ন তুলে তাঁকে অপমান করেছেন।

ফ্রান্সের বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, ফ্রান্স ঐক্যবদ্ধ, ইউরোপও তাই। ইউরোপীয় কাউন্সিলের পরবর্তী বৈঠকে ক্ষমতার ভারসাম্যকে আরো শক্তিশালী করার জন্য সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তুরস্ক যাতে ইউরোপীয় মূল্যবোধ ও স্বার্থ মেনে চলে, তার ব্যবস্থা করতে হবে।

মহানবীর (সা.) কার্টুন প্রদর্শন ঘিরে বিশ্বজুড়ে ফ্রান্সের ইসলামবিরোধী অবস্থানের প্রতিবাদে ক্ষোভ দেখা দেয়। মধ্যপ্রাচ্য, এশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ফরাসী পণ্যসামগ্রী বর্জনের ডাক দিয়েছে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ অনেক দেশ।

মহানবী (সা.) এর বিতর্কিত কার্টুন প্রদর্শন এবং ইসলামবিরোধী অবস্থানের কারণে চলতি সপ্তাহে ফরাসী প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর মানসিক স্বাস্থ্যের পরীক্ষা দরকার বলে মন্তব্য করেন এরদোগান। এর প্রতিবাদে আঙ্কারা থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করে নেয় ফ্রান্স। সোমবার ফরাসী পণ্যসামগ্রী বর্জনের ডাক দেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট। সূত্র : রয়টার্স।

শীর্ষনিউজ/এম