সোমবার, ০১-মার্চ ২০২১, ১২:৫০ অপরাহ্ন
  • আইসিটি
  • »
  • ভারতে স্থায়ীভাবে বন্ধ টিকটকসহ চীনের ৫৯ অ্যাপ

ভারতে স্থায়ীভাবে বন্ধ টিকটকসহ চীনের ৫৯ অ্যাপ

shershanews24.com

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারী, ২০২১ ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

শীর্ষ নিউজ ডেস্ক : ভারতে এবার স্থায়ীভাবে বন্ধ হয়ে গেল টিকটক, শেয়ার-ইট, ইউসি ব্রাউজারের মতো চীনের জনপ্রিয় ৫৯টি অ্যাপ।

প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে ভারত সরকারের ব্যাখ্যা চেয়ে পাঠানো প্রশ্নের জুতসই জবাব দিতে না পারায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে নয়াদিল্লি। খবর রয়টার্সের।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের ইলেকট্রনিকস এবং ইনফরমেশন টেকনোলজি মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে ৫৯ অ্যাপ নিষিদ্ধ করার বিষয়টি জানায়। 

ভারতীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, গত জুনে ওই মন্ত্রণালয়ের করা নোটিশের প্রেক্ষাপটে চীনের ওই অ্যাপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করার সুযোগ দেয় ভারত সরকার। টিকটকসহ ওই প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্যের গোপনীয়তা ও নিরাপত্তার বিষয়ে তাদের অবস্থান জানতে চায় ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। তবে প্রতিষ্ঠানগুলোর পাঠানো জবাবে সন্তুষ্ট হতে পারেনি তারা। 

সে কারণে এখন থেকে এই অ্যাপগুলো ভারতে স্থায়ীভাবে বন্ধ বলে ঘোষণা দেওয়া হয়। গত সপ্তাহেই এ–সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করে ভারত সরকার।

এর আগে গত জুনে এই অ্যাপগুলো সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছিল ভারত। ওই সময় ভারতের তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, ওই অ্যাপগুলো দেশের সার্বভৌমত্ব, অখণ্ডতা, দেশের সুরক্ষার জন্য ক্ষতিকারক। সে কারণেই অ্যাপগুলো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ভারতের নিষিদ্ধ করা অ্যাপগুলোর মধ্যে রয়েছে যে সব অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়েছে সেই তালিকায় রয়েছে আলিবাবা, টেনসেন্ট, শাওমির মতো একাধিক সংস্থা।  ভারতের এই ‘ডিজিটাল স্ট্রাইক’ কি চীনা ব্যবসায়ীদের স্বার্থের পরিপন্থী নয়?

এর আগে ৫৯ অ্যাপ নিষিদ্ধ করার বিষয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান এক প্রশ্নের জবাবে বলেছিল,  ‘চীন এ ব্যাপারে গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
 
লাদাখের সীমান্ত নিয়ে সংঘর্ষের পর থেকেই দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা ছড়ায়।

শীর্ষনিউজ/এম